সিটিকে উড়িয়ে এফএ কাপের পঞ্চম রাউন্ডে চেলসি

chelsea-02-400x250সিটিএন ডেস্ক:

ম্যানচেস্টার সিটিকে উড়িয়ে দিয়ে এফএ কাপের পঞ্চম রাউন্ডে উঠেছে চেলসি। নিজেদের মাঠ স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে রোববার গাস হিডিংকের দলের জয়টি ৫-১ গোলের।

২০১১-১২ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন চেলসির গোলগুলো করেন দিয়েগো কস্তা, উইলিয়ান, গ্যারি ক্যাহিল, এডেন হ্যাজার্ড ও বার্ট্রান্ড ট্রাওরে। সিটির হয়ে একমাত্র গোলটি করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড ডেভিড ফাওপালা।

৩৫তম মিনিটে কস্তার গোলে এগিয়ে যায় চেলসি। এডেন হ্যাজার্ডের পাসে জোরাল হেডে লক্ষ্যভেদ করেন স্পেনের এই ফরোয়ার্ড।

দুই মিনিট পরই সিটিকে সমতায় ফেরান ফাওপালা। কেলাচি ইহেনাকোর ক্রস চেলসির সেজার আজপিলিকুয়েতা পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি; তার পা হয়ে পেয়ে যাওয়া বল লক্ষ্যে পৌঁছে দেন ফাওপালা।

সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে চেলসি ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ মুঠোয় নেয়। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে হ্যাজার্ডের বাড়ানো বলে কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন ব্রাজিলের মিডফিল্ডার উইলিয়ান।

৫৩তম মিনিটে স্কোরলাইন ৩-১ করে নেয় গাস হিডিংকের শিষ্যরা। অবশ্য স্বাগতিকদের পাওয়া এই গোলে বেশি অবদান সিটির ফেরনান্দিনিয়োর। ব্রাজিলের এই মিডফিল্ডার বক্সের মধ্যে বল বিপদমুক্ত করতে না পারলে তা পেয়ে যান সামনে থাকা ক্যাহিল। জোরাল শটে সুযোগটি ঠিকই কাজে লাগান ইংল্যান্ডের এই ডিফেন্ডার।

দুই সতীর্থের গোলে অবদান রাখা হ্যাজার্ড গোলের খাতায় নিজের নামটি তোলেন ৬৭তম মিনিটে। বেলজিয়ামের এই ফরোয়ার্ডকে ডি-বক্সের একটু বাইরে ফাউল করেছিলেন সিটির ডিফেন্ডার মার্তিন দেমিচেলিস। নিখুঁত ফ্রি-কিকে গোলরক্ষকে বোকা বানান হ্যাজার্ড।

চেলসির ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার অস্কারের সামনে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ এসেছিল; কিন্তু পেনাল্টি থেকে লক্ষ্যভেদে ব্যর্থ তিনি। বক্সের মধ্যে ট্রাওরেকে দেমিচেলসি ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি।

৮৯তম মিনিটে এফএ কাপের সর্বশেষ ২০১০-১১ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন সিটির বিদায় নিশ্চিত করে দেন ট্রাওরে। বদলি হিসেবে নামা বুরকিনা ফাসোর এই উঠতি মিডফিল্ডার অস্কারের ক্রসে মাথা ছুঁইয়ে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দর্শকদের আরও একবার আনন্দে ভাসান।


শেয়ার করুন