রিস্থিতি বিবেচনায় নভেম্বরে এসএসসি, ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা-ডাঃ দীপু মনি

ডেস্ক নিউজঃ

করোনাভাইরাস মহামারী পরিস্থিতি বিবেচনায় চলতি বছরের নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা এবং ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা গ্রহণ করার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। তবে করোনা মহামারীর প্রাদুর্ভাব অব্যাহত থাকলে পরীক্ষাগ্রহণ ছাড়াই গত বছরের এইচএসসি ও সমমানের মতো আগের পরীক্ষার ফলাফল মূল্যায়নের ভিত্তিতে এবারও পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। এমনটাই জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে শুরু হওয়া মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে এক ভার্চুয়াল মিটিংয়ে এ কথা জানান তিনি। এ মিটিংয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত রয়েছেন।

ডা: দীপু মনি বলেন, এরই মধ্যে এসএসসি ও সমমান এবং এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষাগ্রহণ করার জন্য পরীক্ষার্থীদের জন্য অ্যাসাইনমেন্ট প্রস্তুত করা হয়েছে।

পরীক্ষাগ্রহণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পরিস্থিতি অনুকূল হলে কেবল নির্বাচনী বিষয়ে পরীক্ষা নেয়া হবে। আবশ্যিক বিষয় যেমন বাংলা, ইংরেজি, গণিত এসব বিষয়ে পরীক্ষা নেয়া হবে না। এগুলো জেএসসি, জেডিসি- এসব পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে নির্ধারণ করা হবে। তবে উচ্চতর ক্ষেত্রে যারা গণিত ও বিজ্ঞান নিয়ে লেখাপড়া করছেন তাদেরকে এসব নির্বাচনী বিষয়ে সংক্ষিপ্ত অ্যাসাইমেন্টের ভিত্তিতে পরীক্ষা নেয়া হবে।

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের জন্য নির্বাচনী বিষয়ে ১২ সপ্তাহের জন্য প্রতি সপ্তাহে দু’টি করে ২৪টি অ্যাসাইনমন্ট ও ২৬ জুলাই থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের জন্য তিনটি নির্বাচনী বিষয়ে ছয়টি পত্রে পাঁচটি করে ৩০টি ১৫ সপ্তাহের জন্য সংক্ষিপ্ত অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হবে। চতুর্থ বিষয়ে অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হবে না। আবশ্যিক বিষয়েও অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যয়ন করা হবে না। যেমন বাংলা, ইংরেজি, গণিত। এক্ষেত্রে জেএসসি জেডিসি পরীক্ষার ওপর ভিত্তি করে ফলাফল মূল্যয়ন করা হবে।

ভাচুয়াল মিটিংয়ে আরো উপস্থিত রয়েছেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক সৈয়দ গোলাম ফারুক, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান নেহাল আহমেদসহ অন্যান্য বোর্ডের চেয়ারম্যান।


শেয়ার করুন