লোকশিল্পী আমান উল্লাহকে নাগরিক শ্রদ্ধাঞ্জলি

মেন্ডোলিনে বাজবে না আর কোন সুর!

13438816_1396942670332895_8328216406138737779_n (1)বার্তা পরিবেশক :
“আইচ্ছা পাগল মনরে, দিন গেলে তুই ঘরত বই বই হাঁদিবি”, “ও হালাচাঁন গলার মালা, পেট পুরেদ্দে তোয়াল্লা” সহ অসংখ্য জনপ্রিয় গানের রচয়িতা, সুরকার, কক্সবাজার তথা বাংলাদেশের বরেণ্য লোক শিল্পী আমান উল্লাহর মহা প্রয়ানে নাগরিক শ্রদ্ধাঞ্জলির আয়োজন করেছে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, কক্সবাজার জেলা শাখা। গতকাল বেলা ১২টায় কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরীর শহীদ দৌলত ময়দানে আমান উল্লাহর মরদেহ আনা হলে কক্সবাজারের সর্বস্তরের নাগরিক শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কক্সবাজারের সাধারণ সম্পাদক নজিবুল ইসলামের সভাপতিত্বে শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, নাট্য ব্যক্তিত্ব এড. তাপস রক্ষিত, সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি সত্যপ্রিয় চৌধুরী দোলন, সঙ্গীতায়তনের সভাপতি অধ্যাপক রায়হান উদ্দিন, সাংস্কৃতিক সংগঠক আবদুল মতিন আজাদ, সাংবাদিক ইউনিয়ন কক্সবাজারের সাধারণ সম্পাদক জাহেদ সরওয়ার সোহেল, কবি মানিক বৈরাগী, জেলা খেলাঘরের সভাপতি আবুল কাশেম বাবু, সাধারণ সম্পাদক কলিম উল্লাহ, জেলা উদীচীর সহ সাধারণ সম্পাদক দীলিপ দাশ, খেলাঘর সংগঠক রিদুয়ান আলী, সাংস্কৃতিক সংগঠক মনির মোবারক, জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি সৌরভ দেব, কমবার যুগ্ন সম্পাদক আপন দে, আমান উল্লাহর বড় ছেলে তারেক হাসান প্রমুখ। শ্রদ্ধা নিবেদন পর্ব সঞ্চালনা করেন জেলা কালাচারাল অফিসার আয়াজ মাবুদ। বক্তারা এসময় বলেন, কক্সবাজার সহ সারাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে শিল্পী আমান উল্লাহ বেঁচে থাকবেন তার কর্মের মধ্যে। তাঁর সৃষ্টকর্ম আগামী প্রজন্মের অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে। শিল্পী আমান উল্লাহর মৃত্যুতে কক্সবাজারবাসী একজন গুণী শিল্পীকে হারালো যা সহজে পুরণের নয়।
দুুপুর ২টায় পাবলিক লাইব্রেরীর শহীদ দৌলত ময়দানে শিল্পী আমান উল্লাহ’র নামাজে জানাযা শেষে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক অর্পন করা হয়।


শেয়ার করুন