মা’ই হত্যাকারী বনশ্রীর দুই শিশুর

1e8f24ed976a10ce16700d775114a524-56d74d9f7ae69ডেস্ক রিপোর্ট সিটিএন 

রামপুরার বনশ্রীতে দুই ভাইবোন নুসরাত আমান অরনী (৯) ও আলভী আমানকে (৬) তাদের মা নিজেই হত্যা করেছেন বলে দাবি করেছে র‌্যাব। র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান এই তথ্য জানিয়েছেন। জিজ্ঞাসাবাদে মা মাহফুজা মালেক জেসমিন এই তথ্য স্বীকার করেছেন বলে জানান তিনি।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় র‌্যাব সদরদফতরে সংবাদ সম্মেলনে এ ব্যাপারে বিশদ জানানো হবে।
ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী নুসরাত আমান অরনী ও হলি ক্রিসেন্ট স্কুলের নার্সারির ছাত্র আলভী আমানকে সোমবার মৃত ঘোষণা করেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা। তাদের শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে ময়তাদন্তের পর জানান তারা। তবে দুই শিশুর স্বজনরা দাবি করছিলেন আগের দিন একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্ট থেকে আনা খাবার খেয়ে বিষক্রিয়ায় তারা মারা গেছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের বাবা আমানুল্লাহ, মা মাহফুজা মালেক জেসমিন ও খালা মিলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। বুধবার জামালপুরে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাদের ঢাকায় নিয়ে আসা হয়।
আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্রে জানা যায়, শিশুদুটির বাবা-মা অসংলগ্ন কথাবার্তা বলছিলেন। তাদের কাছে পৃথকভাবে শিশু দু’টির মৃত্যুর বিষয় জানতে চাওয়া হলে তাদের তথ্যে গরমিল পাওয়া যায়।
তবে তদন্ত সংশ্লিষ্টদের ধারণা, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সৃষ্ট কোনও বিরোধের শিকার হয়েছে দুই সন্তান। ঘটনার সময় মাহফুজা মালেক জেসমিন ও তার বোন আফরোজা মালেক মিলা বাসায় ছিলেন বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে। ইতোমধ্যে স্বামী-স্ত্রী দু’জনের মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করা হয়েছে বলে র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে। এ ঘটনায় আরও কয়েকজনকে সন্দেহের তালিকায় রেখেছে র‌্যাব।
অপরদিকে দুই ভাই-বোনের মৃত্যু সম্পর্কে ঢাকা মহানগর পুলিশের মতিঝিল ক্রাইম বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. আনোয়ার হোসেন জানান, আমরা এখনও ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাইনি।
আদালতে অনুমতি পেয়ে আলামতের ডিএনএ ও ভিসেরা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।


শেয়ার করুন