পেকুয়ায় যুবলীগকর্মী হত্যার ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

images (2)পেকুয়া প্রতিনিধি:
পেকুয়ায় ইউনিয়ন যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ১২জনের বিরুদ্ধে মামলা রেকর্ড হয়েছে। যার মামলা নং ২১। পেকুয়া থানায় গত ২৫অক্টোবর রাতে হত্যাকান্ডের শিকার যুবলীগ কর্মী মো.ইউনুছের সহোদর টৈটং ইউনিয়নের কাছারীমুরা এলাকার মৃত. আব্দুল খালেকের পুত্র আব্দু শুক্কুর বাদি হয়ে ওই মামলাটি রুজু করেছেন। পেকুয়া থানার পুলিশ জনতার সহায়তায় এজাহারভুক্ত মামলার প্রধান আসামী জমির উদ্দিন ও ২নং আসামী একই এলাকার গিয়াস উদ্দিন খোকনকে গ্রেপ্তার করেছে। জানাগেছে, নিহত মো.ইউনুছ টৈটং ইউনিয়ন যুবলীগের একজন সক্রিয় কর্মী। গত ২৪অক্টোবর রাত ৮টার দিকে টৈটং ইউনিয়নের খুইন্ন্যাভিটা নামক স্থানে দুবৃর্ত্তরা এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। ওইদিন রাতে চমেক হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ওইদিন রাতে ঘাতক জমির উদ্দিনকে পাহাড়ি দুর্গম জোকখোলা নামক স্থান থেকে স্থানীয়রা ঘেরাও করে ধরে পুলিশে সোর্পদ করেন। পরে তার স্বীকারোক্তি মতে পরদিন রবিবার সন্ধ্যায় আলোচিত বোরকা বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড গিয়াস উদ্দিন খোকনকে খুইন্ন্যাভিটা এলাকা থেকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। পুলিশ জানিয়েছেন, হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র জমিরের স্বীকারোক্তি মতে ওই এলাকা থেকে জব্দ করে পুলিশ। টৈটং ইউনিয়ন যুবলীগ সম্পাদক মো.বাচ্চু মিয়া জানিয়েছেন, নিহত ইউনুছ টৈটং ইউনিয়ন যুবলীগের ২নং ওয়ার্ডের সক্রিয় একজন কর্মী।
পেকুয়া থানার এ.এস.আই মো. নাজির হোসেন জানিয়েছেন, হত্যার বিষয়টি উদঘাটন করতে ২জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপর আসামীদেরও ধরার জন্য পুলিশ অভিযান জোরদার করেছে। তিনি আরো বলেন, পুলিশ আশাবাদি এ হত্যার ক্লু বের হবে এবং জড়িতদের দ্রুত সময়ে গ্রেফতার করতে সক্ষম হবে।


শেয়ার করুন