কয়েক পুরুষ মিলে এক নারীকে বিয়ে !

china-men_650x400_41445944890-1সিটিএন ডেস্ক:

চীনের লৈঙ্গিক অসমতাজনিত সঙ্কট সমাধানে দরিদ্র কয়েক পুরুষ মিলে একজন নারীকে বিয়ে করার পরামর্শ দিয়ে তীব্র বিতর্কের মুখে পড়েছেন দেশটির এক অধ্যাপক। ঝেজিয়াং বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির অধ্যাপক শি জৌশির দেয়া এ প্রস্তাবটিকে অনৈতিক, পুরুষকেন্দ্রিক এবং লৈঙ্গিক বৈষম্য তৈরিকারী উল্লেখ করে চলছে সমালোচনা। সেইসব সমালোচনার পাল্টা জবাবও দিয়েছেন ওই অধ্যাপক।
সম্প্রতি এক নিবন্ধে জৌশি বলেন, ২০২০ সাল নাগাদ চীনের ৩ কোটি থেকে ৪ কোটি মানুষ অবিবাহিত থাকার আশঙ্কা রয়েছে। প্রয়োজনের চেয়ে নারী কম থাকায় এ সঙ্কট তৈরি হতে পারে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। পরে নিবন্ধটি সেখানকার স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।
সঙ্কট সমাধানে কয়েক পুরুষ মিলে এক নারীকে বিয়ে করার পরামর্শ দেন জৌশি। তিনি বলেন, ‘উচ্চ আয়ের পুরুষেরা খুব সহজেই জীবনসঙ্গী খুঁজে পান। কিন্তু নিম্ন আয়ের পুরুষদের কী হবে? এক্ষেত্রে কয়েকজন মিলে একজন স্ত্রী খোঁজার জন্য নেমে পড়তে পারেন। এটা কোন আকাশ-কুসুম কল্পনার কথা আমি বলছি না। কিছু দুর্গম আর দরিদ্র এলাকায় সব ভাই মিলে এক নারীকে বিয়ে করার প্রবণতা আছে এবং তারা বেশ সুখে বসবাস করে।’
একইসঙ্গে বৃহত্তর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনেরও পরামর্শ দিয়েছেন জৌশি। তার মতে, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ভালো থাকলে অবিবাহিতরা আরও ভালো আয় করতে পারবেন এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও আফ্রিকাসহ অন্যান্য অঞ্চলের নারীদের আকর্ষণ করতে পারবে।
চীনের বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলে বিয়ের জন্য নারীর স্বল্পতার কারণে দেশটির অনেক নাগরিক এরইমধ্যে ভিয়েতনাম ও মিয়ানমারসহ বিভিন্ন দেশের নারীকে বিয়ে করছেন। একইসঙ্গে বিয়ের জন্য নারীর অভাবের কারণে মানব পাচারের ঘটনা এবং বিবাহ কেলেঙ্কারির ঘটনা ঘটছে।


শেয়ার করুন