কউক চেয়ারম্যান ডিসি এসপি ও পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার নোটিশ!

ডেস্ক নিউজঃ

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকায় অবৈধ খাল ও স্থাপনা উচ্ছেদে হাইকোর্টের নির্দেশনা অমান্য করায় কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কউক) চেয়ারম্যানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠিয়েছেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মনজিল মোরসেদ।মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন ‘হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ’- এর প্রেসিডেন্ট অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ গণমাধ্যমকে জানান, সোমবার তিনি এই নোটিশ পাঠিয়েছেন। তিনি যাদের নোটিশ পাঠিয়েছেন তারা হলেন কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লেফটেনেন্ট কর্ণেল (অবঃ) ফোরকান আহমেদ, উপ-পরিচালক তানভির হাসান, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান এবং কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান।

নোটিশে তাদের ২৪ ঘণ্টার সময় দিয়ে বলা হয়েছে, ২০১১ সালের ৭ জুন হাইকোর্টের দেয়া আদেশ অনুসারে কক্সবাজার সৈকত এলাকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য অক্ষুণ্ন রাখতে সেখান থেকে সব ধরনের অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদ করার উদ্যোগ নিতে হবে।

‘হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ’- এর নোটিশে বলা হয়, ২০১১ সালের জুন মাসে হাইকোর্ট কক্সবাজারের সৈকতের আশপাশে অবৈধ খাল ও স্থাপনা উচ্ছেদের নির্দেশ দিলেও এখনও তা সম্পূর্ণ বাস্তবায়িত হয়নি। সৈকতে অবৈধ স্থাপনা ভাড়া দিয়ে ক’জন অসাধু ব্যবসায়ী কোটি কোটি টাকা আয় করছে। কিন্তু প্রশাসন ব্যবস্থা নিচ্ছে না, যা আদালত অবমাননার সামিল।অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ আইনি নোটিশে উল্লেখ করেন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের ব্যবস্থা না নিলে কর্তাব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননারর দায়ে মামলা দায়ের করা হবে।


শেয়ার করুন