উখিয়ায় সোর্স নামধারী দালালচক্র বেপরোয়া

imagesশফিক আজাদ, উখিয়া:
উখিয়ায় সোর্স নামধারী কতিপয় পেশাদার দালালচক্র বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। সংঘবদ্ধ এ চক্রটি বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নাম ব্যবহার করে গ্রামগঞ্জের সহজ সরল মানুষদের ভয়ভীতি প্রদর্শন পূর্বক মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনা নিয়ে গ্রামবাসী প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করলেও থামছে না দালাল চক্রের বেপরোয়া আচরণ ও অনৈতিক কর্মকান্ড। এ নিয়ে এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে বিরাজ করছে চাপা উত্তেজনা।
জানা গেছে, সাগর উপকুল দিয়ে মালয়েশিয়ায় মানব পাচারের সাথে সরাসরি জড়িত বেশ কিছু আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সোর্স নামধারী দালালচক্রের বিরুদ্ধে থানায় ও আদালতে মামলা হয়েছে। বেশ কিছু দিন আত্মগোপনে থাকা এসব মানবপাচারকারী বর্তমানে পুলিশের, ডিবি পুলিশের, আনসার ভিডিপি সহ বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নাম ব্যবহার করে সাধারণ জনগণকে অহেতুক ভয়ভীতি প্রদর্শন ও মোটা অংকের টাকা দাবী করায় গ্রামগঞ্জে অস্বস্তিকর পরিবেশের সৃষ্টি হলেও দেখার কেউ নেই। দালাল চক্রের মানসিক ও আর্থিক হয়রানির শিকার একাধিক ভুক্তভোগী জানান, পশ্চিম মরিচ্যা গ্রামের চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী ও মানবপাচারের সাথে সরাসরি জড়িত রশিদ আহমদ নিজেকে পুলিশের সোর্স দাবী করে গণহারে টাকা আদায় সহ ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসছে দীর্ঘ দিন থেকে। খুনিয়াপালং ও ধোঁয়াপালং গ্রামের আব্দুল করিম ও বেলাল আহমদ নামের ব্যক্তিদ্বয় জানান, মানবপাচার মামলায় তাদের নাম রয়েছে মর্মে ভীতিকর উদ্ভুদ পরিস্থিতির সৃষ্টি করে তাদের নিকট থেকে মোটা অংকের টাকা আদায় করে ক্ষান্ত হয়নি। উপরুন্ত সোর্স নামধারী ওই ব্যক্তিটি ওসি ও এসপিকে খুশি করতে হবে মর্মে আরো টাকা দাবী করছে। নইলে রাতে পুলিশ এসে তাদেরকে আটক করার হুমকি ধমকি প্রদর্শন করায় তাদেরকে বাধ্য হয়ে গ্রাম ছেড়ে অন্যত্রে মানবেতর দিনযাপন করতে হচ্ছে। এভাবে হতদরিদ্র পরিবারের অনেকেই পালিয়ে বেড়াচ্ছে বলে গ্রামবাসীর অভিযোগ।
পূর্ব গোয়ালিয়াপালং গ্রামের মোঃ মামুন নামের এক ভুক্তভোগী জানান, তার অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করার পরও তার অনৈতিক আচরণ ও বেপরোয়া ঘুষ বাণিজ্য থামছে না। এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ জহিরুল ইসলাম খান জানান, পুলিশের কোন সোর্সের প্রয়োজন নেই। অপরাধ দমনে পুলিশ যথেষ্ট। তিনি বলেন, পুলিশের নাম ভাঙ্গিয়ে যারা অপরাধ প্রবণতায় জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


শেয়ার করুন